Background Image

আমাদের সংবাদ

হজ্ব ও ওমরাহ্’র বিধান বর্ণনার নতুন রূপ

হজ্ব ও ওমরাহ্’র বিধান বর্ণনার নতুন রূপ

3:25 am Friday 5th Dhu al-Qi'dah 1438 H

“ই-মানাসিক একাডেমি” প্রকল্পের ব্যাখ্যা করতে গিয়ে সৌদি ধর্মমন্ত্রীর হজ্ব, ওমরাহ্, যিয়ারত ও মিডিয়াবিষয়ক উপদেষ্টা ও এ ই-একাডেমির নির্বাহী পরিচালক শাইখ ত্বলাল বিন আহমাদ আল-আক্বীল বলেন: “ই-মানাসিক একাডেমি” প্রকল্পটি হজ্ব-ওমরাহ্ ও যিয়ারত সংশ্লিষ্ট সেবা কর্মসূচিসহ মন্ত্রণায়ের সার্বিক কাজে উন্নতি ও অগ্রগতি সাধনে মাননীয় ধর্মমন্ত্রী শাইখ সালেহ বিন আব্দুল আযীয বিন মুহাম্মদ আল-আশ্ শাইখ এর চিন্তার ফসল। এতে মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে একাত্মতা পোষণ করে শরিয়তের জ্ঞান প্রচারে আধুনিক যোগাযোগ মাধ্যমসমূহের যথাযথ ব্যবহারের পাশাপাশি অনলাইন শিক্ষার প্রতি বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করেছেন মাননীয় ধর্মমন্ত্রীর মসজিদ বিষয়ক উপমন্ত্রী ড. তাওফীক্ব বিন আব্দুল আযীয আস্-সুদাইরী।

উক্ত নির্দেশনার ভিত্তিতে সরকারী জরীপের তত্য অনুযায়ী বিশ্বের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ আটটি ভাষায় প্রথমবারের মতো একাডেমির পথচলা শুরু হলো। আধুনিক প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে সম্পূর্ণ নতুন ও মনোমুগ্ধকর পদ্ধতিতে হজ্বের বিধি-বিধান, এতদসংশ্লিষ্ট নির্দেশনাবলী সুবিন্যস্তভাবে জানতে এবং হজ্বের সেবামূলক কর্মসূচি থেকে যথাযথ উপকৃত হতে এটি একটি উন্মুক্ত ই-প্ল্যাটফর্ম। একাডেমির নিজস্ব ওয়েবসাইটের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এর নিজস্ব পেইজ/ অ্যাকাউন্ট এবং স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের উপযুক্ত এ্যাপস রয়েছে। এর যেকোন মাধ্যমে হজ্ব ও ওমরাহ্ আদায়কারীগণ অথবা হজ্ব ও ওমরাহ্ সংশ্লিষ্ট বিধি-বিধান জানতে আগ্রহী মুসলিমগণ বছরের যেকোন দিন, দিন-রাতের যেকোন সময় বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকে এ একাডেমি থেকে উপকৃত হতে পারবেন।

শাইখ আল-আক্বীল স্বপ্নের এ ই-একাডেমি বর্তমান অবস্থানে পৌঁছতে যারা যেভাবে ভূমিকা রেখেছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। বিশেষ করে অভিজ্ঞ ওলামা-মাশায়েখ ও দেশী-বিদেশী বিজ্ঞ দা‘ঈগণের প্রতি, যারা একাডেমিতে প্রদত্ত কোর্স ও পাঠসমূহ সুবিন্যস্ত ও সুনিপুনভাবে উপস্থাপন করে এর মানকে বহুগুণে বাড়িয়ে দিয়েছেন। উল্লেখ্য: অনারবী ভাষায় অংশগ্রহণকারী আলোচকগণ সৌদিআরবের বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি থেকে গ্র্যাজুয়েশনপ্রাপ্ত। অনেকে নিজ নিজ দেশে সৌদি ধর্মমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নিয়োগপ্রাপ্ত দা‘ঈ। আল্লাহ্ তা‘আলা সকলকে উত্তম প্রতিদান দান করুন।